Friday, February 3, 2017

খুব সহজেই বিট কয়েন সাইটে আয় করুন এবং উক্ত অর্থ বিট কয়েন ক্যাশ/উইথড্র করুন বাংলাদেশের যে কোন অনলাইন ব্যাংকে!!

আসসালামু আলাইকুম।
সুপ্রিয় টেকটিউন্স কমিউনিটি সাইটের সবাইকে সালাম ও শুভেচ্ছা। আশা করি সবাই এক প্রকার কুশলেই আছেন। আজকের টিউনে আমি আপনাদেরকে বিট কয়েন সম্পর্কে রিভিউ করব। এখানে বিট কয়েন রিভিউ বলতে বুঝাচ্ছি কিভাবে আপনি বিট কয়েন আয়কে পেইজাতে ট্রান্সফার করবেন। যেহেতু পেইজা বাংলাদেশে বৈধ এবং তাদের কার্যক্রম রয়েছে সেই হিসাবে পেইজাতে বিট কয়েন ট্রান্সফারের পদ্ধতি দেখাব। সুতরাং বিট কয়েন কিভাবে টাকাতে রুপান্তর  ও উইথড্র করবেন তার কৌশল জানতে আমার এই টিউন একটু মনোযোগের সাথে দেখুন অতপর কাজ করুন।


বিট কয়েন কি এবং কিভাবে আয় ও উইথড্র করা যায় তা প্রায় দিন দশেক পূর্বে টিটিতে একটি টিউন করেছিলাম। সুতরাং নতুন করে রিপিট করতে চাচ্ছি না। যাদের দেখার ও বুঝার প্রয়োজন আছে তারা নিচের লিংকে ক্লিক করলেই বিস্তারিত তথ্যাদি দেখতে পাবেন। লিংক এখানে
যাইহোক এবার হয়ত ভিন্নসূরে বলবেন যে, কয়েনবেইজ সাইট হতে কিভাবে অর্থ উইথড্র করবেন। মূল কথা বাংলাদেশে বাংলাদেশী টাকাতে পেমেন্ট পাবেন। হ্যা বন্ধুরা আজকের বিট কয়েনের ২য় পর্বের পোস্টে আপনাদেরকে তা দেখিয়ে দিব।
কয়েনবেইজ সাইট হতে গেটওয়ে পেমেন্ট পাওয়ার জন্য বেশ কয়েকটি সাইট রয়েছে যেমন: Alfa cashier, goldux, coin Trans root ইত্যাদি।  তার মধ্যে হইতে এমন একটি সাইটের সাথে পরিচয় করিয়ে দিব ও কৌশল শেখাব যার মাধ্যমে খুব সহজে বিটকয়েন উইথড্র(ক্যাশ) করতে পারবেন বাংলাদেশের যেকোন অনলাইন ব্যাংকে। যেমন- Islami bank ltd, DBBL, UCBL, FISB, AB Bank, Prime Bank, Jamuna, Trsut Bank সহ ইত্যাদি সকল অনলাইন ব্যাংক (শুধু বাংলাদেশ নয়, অন্যান্য দেশেও এই পদ্ধতি কাজ করবে)।

নির্দেশিকা:

অনেকেই বিটকয়েন ক্যাশ করার জন্য বিভিন্ন ওয়েবসাইটে (BTC-e, Localbitcoin etc.) রেজিস্ট্রেশন করে সময় নষ্ট করেন। এতে টাকা পাওয়া সাবার জন্য সহজ হয়না অথবা অনেক দেরি হয়। তাই  আপনাদের জন্য নতুন পদ্ধতি সম্পর্কে বিস্তারিত জানাব।

টাকা Cash Out/Withdraw করার পদ্ধতিঃ

Step: 1 (Pay Account)
বাংলাদেশের যেকোন অনলাইন ব্যাংকে টাকা ট্রান্সফারের জন্য আপনার অবশ্যই একটি Payza একাউন্ট থাকতে হবে। কারন বাংলাদেশের যেকোন অনলাইন ব্যাংকে টাকা ট্রান্সফার করার জন্য এটিই সবচেয়ে বেশি ব্যাবহার করা নির্ভরযোগ্য একটি সাইট। পেইজা একাউন্ট ওপেন করা তেমন কষ্টের নই। তাছাড়া টিটিতে পেইজা নিয়ে প্রায় শ'খানেক টিউন আছে!
যাদের Payza একাউন্ট নেই তারা এই লিংকে এ গিয়ে Sign up এ ক্লিক করে আপনার সঠিক তথ্য দিয়ে একটি একাউন্ট খুলুন। অর্থাৎ আপনার সঠিক নাম, ঠিকানা,ইমেইল, লোকেশন ইত্যাদি তথ্য সঠিক ভাবে দেবেন। প্রাথামিক অপশনে Personal নির্বাচন করতে পারেন।
(বি:দ্র- যদি পূর্বে একাউন্ট ওপেন করা থাকে তাহলে সমস্যা নাই, এটি দ্বারাই কাজ করা যাবে)

Step:2 (Exchange E-Currency:)

কয়েনবেইজ সাইট হতে টাকা বাংলাদেশে ক্যাশ করতে তথারুপ পেইজাতে আনতে হলে এই লিংকে ক্লিক করে আপনার সঠিক তথ্য দিয়ে একটি একাউন্ট খুলুন। এটি অনলাইনে কারেন্সি এক্সচেঞ্জ করার নির্ভরযোগ্য একটি মাধ্যম। মূলত এই সাইটের মাধ্যমে আপনার বিটকয়েন ডলারে পরিনত হয়ে Payza একাউন্টে যাবে।
রেজিস্ট্রেশন করতে বাম পাশে +Sign up লেখাতে ক্লিক করুন।নিচের চিত্রের মতএকটি পেজ আসবে।এখানে সব তথ্য দিয়ে পুনরায় Sign up লেখাতে ক্লিক করুন।



তারপর আপনার ইমেইল ইনবক্সে একটি ভেরিফিকেশন মেসেজ আসবে। এখান থেকে একাউন্ট ভেরিফাই করে নিন। এবং সাইটে লগ ইন করুন।


এরপর (1) Buy & Sell E-Currency তে ক্লিক করুন। তারপর (2)Select from =Bitcoin এবং Select to =Payza USD নির্ধারণ করে দিন। তারপর আপনার বিটকয়েন পরিমান (minimam 0.1 BTC) লিখে (3) Send/Next বাটনে ক্লিক করুন।
বি.দ্রঃ আপনার coinbase একাউন্টেযেপরিমান BTC জমা হয়েছে তা উপরের দেখানো বিটকয়েন পরিমানে লিখবেন।কমবেশি করবেন না।
তারপর নিচের মত একটি পেজ আসবে। এখানে আপনার Payza একাউন্টে যে ইমেইল এড্রেস দিয়ে সাইন আপ করেছেন সে ইমেইল আইডি লিখে Send বাটনে ক্লিক করুন।


নিচের চিত্রের মত দেখাবে-

 

এখানে আপনাকে একটি বিটকয়েন এড্রেস দেয়া হবে। এটি কপি করে রাখুন, একটু পর কাজে লাগবে।

Step: 4 : Send Money:

এখন আপনার Coinbase একাউন্টে লগইন করুন। তারপর My Wallet=>Send Money তে ক্লিক করুন।
নিচের মত একটি পেজ দেখাবে। এখানে To: তে কিছুক্ষন আগে যে বিটকয়েন এড্রেস পেয়েছেন তা Paste করুন। Amount এ আপনার বিটকয়েনের পরিমান (যা GOLDUX সাইটে লিখেছিলেন) লিখে Send Moneyতে ক্লিক করুন। এখানে সার্ভিস চার্জ হিসাবে আপনার একাউন্ট থেকে কয়েনবেসে 0.002BTC কেটে রাখা হবে। তাই হিসাব করে Amount লিখুন।



আপনাকে Confirmation মেসেজ জানানো হবে।
আপাতত আপনার কাজ শেষ। অপেক্ষা করুন এবং চেক করে দেখুন আপনার Payza একাউন্টে টাকা জমা হয়েছে কিনা।  বেশিক্ষণ লাগার কথা নয়, মিনিমাম ৩০ মিনিট হতে সর্বোচ্চ ৬ ঘন্টা লাগতে পারে।


উক্ত কাজের প্রমান (বিট কয়েন পেইজা একাউন্টে যোগ হওয়া):

আসলে আমি অদ্য টিউন অনুযায়ী পরীক্ষাটি পূর্বে বেশ কয়েকবার করেছিলাম। তবুও কনফার্ম হবার জন্য টিউন প্রকাশের পূর্বে পরীক্ষা করেই তবে পাবলিশ করেছি। বিট কয়েন পেইজা একাউন্টে সফল ভাবে যোগ হলেই আপনার মেইলে একটি নিশ্চিতকরন বার্তা পাবেন। যেমনটি আজকে আমি পেয়েছি।

ক।

খ।



সুতরাং বুঝতেই পারছেন, আপনার Payza তে ডলার জমা হবে তখনি আপনি বাংলাদেশের যেকোন অনলাইন ব্যাংকের মাধ্যমে টাকা তুলতে পারবেন।

Step-5: Payza ক্যাশআউট পদ্ধতিঃ

এবার আপনার Payza একাউন্টে লগইন করে Withdraw Funds এ ক্লিক করে Bank Transfer সিলেক্ট করুন।



এভাবে পরের/৩য় ধাপে একাউন্ট সেটআপ সম্পন্ন করুন। তারপর আবার Withdraw Funds এ গিয়ে আপনার ব্যাংক ট্রান্সফার সম্পন্ন করুন। Account processing হতে কিছু সময় লাগবে।কিছুদিনের মধ্যে আপনার ব্যাংক একাউন্টে টাকা জমা হয়ে যাবে। এভাবেই আপনি আপনার বিটকয়েন হতে টাকা আয় করতে পারবেন।

জ্ঞাতব্য বিষয়:

১। এই ক্ষেত্রে অবশ্যই পেইজা সহ goldux এর একাউন্ট ভেরিফাইড হতে হবে। ভেরিফাইড করার জন্য আপনার জাতীয় পরিচয় পত্র, ব্যাংক একাউন্ট স্টেটমেন্ট/পাসপোর্ট/ড্রাইভিং লাইসেন্স  কিংবা ইউটিলিটি বিলের কপি থাকতে হবে।
২। সুতরাং সেইগুলো যথাযথ থাকলে আপনাকে তা সাবমিট করতে হবে। সাবমিট করার প্রায় ১০ দিনের মাথায় আপনাকে জানিয়ে দেওয়া হবে একাউন্ট ভেরিফাইড হয়েছে কিনা!
৩। জাতীয় পরিচয় পত্র, ব্যাংক একাউন্ট স্টেটমেন্ট এর নামের সাথে উক্ত একাউন্টগুলো ওপেন করার সময় নামের বানান ঠিক রাখতে হবে।
৪। একাউন্ট ভেরিফাইড না থাকলে আপনার যাবতীয় লেনদেনগুলো পেন্ডিং অবস্থাতে শো করবে।
 সুতরাং যতটুকু নেটে সময় পান সেই অবস্থাতে কোন কাজ না জেনে ফ্রি বিয়কয়েন আয় করতে পারেন। আর প্লিজ প্লিজ মিনিমাম ০.৫ BTC- ১.০ BTC না হওয়া পর্যন্ত টাকা তোলার কথা চিন্তা করবেন না। তাহলে তেমন লাভ পাবেননা। একটু সময় নিয়ে নিয়মিত কাজ করুন। দেখবেন একদিন ঠিকই সফলতা পাবেন!! আর হ্যা বিট কয়েন আয়কে কখনোই টাকা বানানোর মেশিন বলে মনে করবেন না। কারন, পরিশ্রম ব্যতিত কোন আয় অর্জন করা সম্ভব নই। অনলাইনে বেশী পরিমানে অর্থ উপার্জনের ধান্দা থাকলে অবশ্যই  ব্লগিং কিংবা ফ্রিল্যান্সিং সাইটে কাজ শিখবার চেষ্টা করুন। পরিশেষে টিউনে অগোচরে কোন বিচ্যুতি থাকলে ক্ষমা সুন্দর দৃষ্টিতে দেখবেন।
Previous Post
Next Post

0 comments: Post Yours! Read Comment Policy ▼
লক্ষ্য করুনঃ
পোষ্টের সাথে সম্পৃক্ত নয় এমন কোন কমেন্ট করা যাবে না। কোন কারণ ব্যতীত আপনার ব্লগের লিংক শেয়ার করতে যাবেন না। সবসময় গঠনমূলক মন্তব্য প্রদানের চেষ্টা করবেন। আমরা সবার মতামত সমানভাবে মূল্যায়ন করি এবং যথাসময়ে প্রতি উত্তর দেয়ার চেষ্টা করি।

Post a Comment

 
Copyright © বিডি.পয়সা ক্লিক,নিবন্ধিত ও সংরক্ষিত. মডিফাইঃ পিসি টীম, সার্ভার হোস্টেডঃ গুগল সার্ভিস