Sunday, January 10, 2016

নিজের কম্পিউটার নিজেই কিনি ও শিখি! [পর্ব-০৩] প্রসেসরের কোর, সকেট, টার্বো, ক্যাশ মেমোরি ও গিগাহার্টজ সম্পর্কিত তথ্যাদি!!

  السلام عليكم আসসালামু আলাইকুম।
সুপ্রিয় টেকটিউন্স সাইটের সবাইকে সালাম ও শুভেচ্ছা। আশা করি সবাই এক প্রকার কুশলেই আছেন। ধারাবাহিক পর্ব হিসাবে আজকের টিউটোরিয়ালে আলোচনা হবে প্রসেসর সম্পর্কে। প্রসেসর কি, কিভাবে কাজ করে, কোন ধরনের প্রসেসর ভাল, কি ধরনের প্রসেসর ক্রয় করবেন তার যাবতীয় বিষয় সম্পর্কে আপনাদেরকে জানানোর চেষ্টা করব। তথাপি নতুন কম্পিউটারকেনার সময়একটা কমনপ্রশ্ন থাকে, কোন প্রসেসরনেওয়া ভালো? প্রসেসরের নানা বৈশিষ্ট্য, ক্ষমতা, রকমফেরদেখে পুরোইহ্যাং ওভার অবস্থা! এই অজনা বিষয়ের সমাধানের জন্য এই পোস্ট! তাহলে আর কথার কলেবর বৃদ্ধি না করে মূল আলোচনাতে যাচ্ছি।আলোচনার প্রথম অংশ হিসাবে জানার চেষ্টা করব প্রসেসর কি?

দৃষ্টি আকর্ষণঃ হার্ডওয়্যার সম্পর্কিত আমার অন্যান্য প্রকাশনা

প্রসেসর কি?

 
সহজ ভাবে বলা যায়, কম্পিউটার যে যন্ত্রটি দিয়ে তথ্য উপাত্ত প্রক্রিয়াকরণের কাজ সম্পাদন করে, তাকেই প্রসেসর বলে। আগের দিনের কম্পিউটারের প্রসেসর গুলো ছিল অনেক বড়। কিন্তু ১৯৭১ সালে মাইক্রোপ্রসেসর আবিষ্কারের মধ্য দিয়ে ক্ষুদ্র প্রসেসরের যাত্রা শুরু হয়।বর্তমানে প্রসেসর বলতে আমরা মাইক্রোপ্রসেসরকেই বুঝে থাকি ল্যাপটপ, সার্ভার কিংবা যে-কোনো সাধারণ ডেস্কটপ কম্পিউটারের স্নায়ু কেন্দ্র একটিমাত্র সমন্বিত চিপ- মাইক্রোপ্রসেসর যা কম্পিউটারের সিপিইউ নামে পরিরিচত। প্রকৃতঅর্থে, মাইক্রোপ্রসেসর একটি স্বয়ংসম্পূর্ণ এবং প্রোগ্রামেবল এমন একটি গাণিতিক ইঞ্জিন যা ইন্সট্রাকশনের মাধ্যমে কম্পিউটারের যাবতীয় অপারেশন নিয়ন্ত্রণ এবং সম্পাদন করে। এই সমন্বিত চিপটি একটি ছোট, পাতলা সিলিকন যার সামান্য কয়েক বর্গমিলিমিটারে কয়েক-কোটি ট্রানজিস্টার থাকেবিস্তারিত জানতে হলে উইকিপিডিয়াতে দেখতে পাবেন এখানে

প্রসেসরের আশ্চর্যজনিত কিছু বৈশিষ্ট্য ও বিষয় সমূহ

যদি কেউ প্রশ্ন করেন কম্পিউটারের প্রানবা হার্টকি? আপনিকি বলবেন? উত্তরে যাই বলুন না কেন, কম্পিউটারের যে আসলেই হার্ট আছে সেটা সত্যি।আর সেইহার্ট হচ্ছেপ্রসেসর। প্রতিসেকেন্ডে সফটওয়্যারএর মাধ্যমেদেয়া আপনারকমান্ড প্রসেসকরাই প্রসেসরএর কাজ।তো আপনিকিভাবে বুঝবেনযে আপনিযেই প্রসেসরনিতে চাচ্ছেনসেটি আসলেইআপনার কথামতকাজ করারমত ক্ষমতাশালীকিনা? অফিসএর কাজঅথবা হেভিগেমিং কিংবারেন্ডারিং এর জন্য আপনার প্রসেসরআসলেই উপযোগীকিনা কিংবাকিভাবে খুজেনিবেন আপনারজন্য উপযোগীপ্রসেসর সেটাজানাতেই এই টিউন। তথাপি মাডারবোর্ডের মত প্রসেসরের কাঠামোগত বেশ বৈশ্ষ্ট্যি রয়েছে যেগুলো জানতে নিজেই তাজ্জব হবেন-

Socket



সকেট হচ্ছেএকটি Physical Component যেটা একটামাদারবোর্ড এর সাথে প্রসেসর এরPhysical ইলেকট্রিক্যাল কানেকশন সহায়তাকরে।

Core



সহজ ভাবেবলতে গেলেকোর হচ্ছেএক একটিআলাদা সিপিউ।বর্তমানে কয়েকটিআলাদা সিপিউনিয়ে মাল্টিকোর এরপ্রসেসর তৈরিকরা হয়।যেমন ধরুনপেন্টিয়াম হচ্ছে সিঙ্গেল কোরঅর্থাৎ একটিআলাদা সিপিউ।কোর ডুও হচ্ছে কোরেরসিপিউ যেখানে টিআলাদা সিপিউকে একত্রকরে মাল্টিকোর সিপিউতে পরিনতকরা হয়েছে।বর্তমানে বাজারেসর্বচ্চ কোরের প্রসেসরপাওয়া যায়।

GHz/Gigahartz


GHz হচ্ছে একটি একক যা প্রসেসরএর কাজেরগতি নির্দেশকরে। একটিপ্রসেসর প্রতিসেকেন্ডে কতদ্রুত কাজকরতে পারেতা এইগিগাহার্টজ এককে প্রকাশ করা হয়।১গিগাহার্টজ= বিলিয়ন সাইকেল পারসেকেন্ড। গিগাহার্টজযত বেশিহবে, প্রসেসরতত শক্তিশালীহবে।

Cash Memory



এটি প্রসেসরএর সবথেকেগুরুত্বপূর্ণ একটি অংশ। ক্যাশ মেমরিহচ্ছে একধরনের মেমরিযা প্রসেসরএর সাথেযুক্ত থাকে।যখন প্রসেসরকেকোন কাজেরকমান্ড দেয়াহয়, প্রসেসরতখন সেটাক্যাশ মেমরিতেসংরক্ষণ করেরাখে। কাজেরকমান্ড এরতুলনায় ক্যাশমেমরির পরিমানকম হলেপ্রসেসর তা্যাম খুববিশেষ কিছুক্ষেত্রে হার্ডডিস্ক সংরক্ষণকরে। ফলেপ্রসেসর ধীরগতিরহয়ে যায় পিসিস্লো হয়েআসে। তাইএই ক্যাশমেমরি যতবেশি থাকবেততই ভাল।তবে এইক্যাশ মেমরিআবার প্রকার।

L1 -ধারণক্ষমতা বা আকার খুব ছোট, কিন্তু সবথেকেদ্রুতগতিতে কাজ করতে পারে

L2- ধারণক্ষমতা বা আকার মাঝারি এবংকাজের গতিওমাঝারি।


L3- ধারণক্ষমতা বা আকার অনেক বেশিকিন্তু কাজেরগতি তুলনামুলকধীর।





এর মাঝেL2 হচ্ছে সবথেকেব্যালেন্স এক টাইপের ক্যাশ মেমরি।ইন্টেল সাধারণতL2 আবার L2/3 ২টা একসাথে ব্যাবহার করে।AMD বেশীরভাগ ক্ষেত্রে L1/2/3 ৩টাই একসাথে ব্যাবহারকরে বেটারঅপটিমাইজেশন এর জন্য।

FSB/Front Side Bus




এফএসবি দ্বারা সিপিউ মাদারবোর্ডেরচিপসেট কম্পোনেন্ট এর যোগাযোগের গতির হারকে বুঝানোহয়। এফএসবিযত বেশিহবে, সিপিউতত তাড়াতাড়িমাদারবোর্ড অন্যান্য যন্ত্রের সাথেযোগাযোগ করতেপারবে। তাছারাFSB বেশি হলেআপনি অনেকবেসি বাসস্পীড এর্যামব্যাবহার করতেপারবেন (যদিআপনার মাদারবোর্ডএকই মাপেরFSB সাপোর্ট করে)

Turbo Boost

এটি মুলতহচ্ছে একটাপ্রসেসর এরHighest Speed কাজ করার ক্ষমতা। প্রসেসরএর ভোল্টেজ থার্মালদ্বারা টার্বোবুস্ট কেলিমিটেড করেরাখা হয়।




প্রসেসরের কোর, থ্রেড এবং হাইপারথ্রেড কি?

হাইপার থ্রেডিং হচ্ছে ইন্টেল এরএকটি যুগান্তকারীআবিস্কার যাসিঙ্গেল কোরকে দুইকোরের সমানকাজ করারক্ষমতা দানকরে। এএমডিরপ্রসেসর এর নামহাইপার ট্রান্সপোর্ট।এই প্রযুক্তিরকারনে একসাথেঅনেকগুলো কাজকরলেও সিস্টেমএর গতিধীর হয়না।  হাইপার থ্রেডিং/ট্রান্সপোর্ট সমর্থনকারীপ্রসেসর এরক্ষমতা সাধারনথেকে ভালহয় থ্রেড/হাইপারথ্রেডমূলত ইন্টেল এর একটি টেকনোলজি যাএকটি সিঙ্গেলকোরকে কোরের সমানকাজ করারসাময়িক ক্ষমতাপ্রদান করে।অর্থাৎ একটিফিজিকাল কোরেরসাথে একটিভার্চুয়াল কোর। কিন্তু কোন কোনক্ষেত্রে এইথ্রেড/হাইপারথ্রেডকাজের সেটাহচ্ছে আসলবিষয়। শুধুকোর দিয়েবিবেচনা করলেইন্টেল এরআছে কমকিন্তু খুবশক্তিশালী কোর। আর সেই তুলনায়AMD এর কোরসংখ্যা বেশিকিন্তু প্রতিকোরে ভোল্টেজকম, অর্থাৎকিছুটা দুর্বল।
 



নোটঃ

কম্পিউটার প্রসেসর কোর কি, কিভাবে কাজ করে, কোর সমূহের কাজ ও প্রকারভেদ এবং ক্লক স্পীড কিভাবে কাজ করে এই সম্পর্কে A-Z টিউটোরিয়াল সাজানো আছে। টিউটোরিয়ালটি করেছেন টিটির জনপ্রিয় শীর্ষ টিউনার সানিম মাহবীর ফাহাদ ভাই। সময় থাকলে প্রকাশনাটি দেখলে বুঝতে পারবেন এখানে 

সর্বশেষ

টিউনের কলেবর বৃদ্ধি জনিত কারনে আজ এই পর্যন্তই থামতে হচ্ছে। আশা করি, এই পোষ্টটি দেখলে আপনাদের অনেকেরই প্রযুক্তিগতভাবে প্রসেসর সম্পর্কে এর গঠনগত ও ব্যবহারগত কৌশল সম্পর্কে বেশ সুস্পষ্ট ধারনা তৈরিতে সাহায্য করবে। প্রসেসর সম্পর্কিত টিউনের বাকি অংশ আগামী কাল পাবলিশ করব বলে আশা রাখি। প্রসেসর সম্পর্কিত ২য় পর্বে থাকবে কোন ব্রান্ড বেছে নিবেন, সুবিধা-অসুবিধাবলী, কোথা হতে ক্রয় করবেন, কোন ধরনের প্রসেসর আপনার জন্য উপযুক্ত এবং অনুমোদিত বাংলাদেশী প্রসেসর আমদানী কারকদের তালিকা। তাহলে আজ এই পর্যন্তই। দীর্ঘ সময় নিয়ে পোষ্ট দেখার জন্য সকলকে ধন্যবাদ। সবাই ভাল থাকুন। -আল্লাহ্ হাফেয-
Previous Post
Next Post

0 comments: Post Yours! Read Comment Policy ▼
লক্ষ্য করুনঃ
পোষ্টের সাথে সম্পৃক্ত নয় এমন কোন কমেন্ট করা যাবে না। কোন কারণ ব্যতীত আপনার ব্লগের লিংক শেয়ার করতে যাবেন না। সবসময় গঠনমূলক মন্তব্য প্রদানের চেষ্টা করবেন। আমরা সবার মতামত সমানভাবে মূল্যায়ন করি এবং যথাসময়ে প্রতি উত্তর দেয়ার চেষ্টা করি।

Post a Comment

 
Copyright © বিডি.পয়সা ক্লিক,নিবন্ধিত ও সংরক্ষিত. মডিফাইঃ পিসি টীম, সার্ভার হোস্টেডঃ গুগল সার্ভিস